,

হীরাঝিলে প্রিয়ম টাওয়ারে গরিব অসহায় মানুষের মধ্যে গোশত বিতরণ

সিদ্ধিরগঞ্জ প্রতিনিধি : সিদ্ধিরগঞ্জ হীরাঝিল আবাসিক এলাকায় প্রিয়ম টাওয়ারে পবিত্র ঈদুল আযহার দ্বিতীয় দিনে গরিব-দুঃখি অসহায় ২ হাজার মানুষের মাঝে গরুর গোশত বিতরণ করেন। গত ২২ ই জুলাই সকাল ১২ টায় প্রিয়ম টাওয়ারে এ বিতরণ অনুষ্ঠান করা হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন বিশিষ্ট সমাজ সেবক গরিব অসহায় মানুষের সাহায্যদাতা আলহাজ্ব হাফেজ মাওলানা হাবিবুল্লাহ কাচপুরী, বিশিষ্ট আলোচিত এবং সুনামধন্য বক্তা আল্লামা শায়েখ মাওলানা তারেক মনোয়ার ,মাওলানা সাদিকুর রহমান আজহারী, আবুল কালাম আজহারি, সিদ্ধিরগঞ্জ থানার এসআই সাফায়েত , শিক্ষক ও সাংবাদিকবৃন্দ প্রমূখ।
এ সময় আলহাজ্ব হাফেজ মাওলানা হাবিুল্লাহ কাচঁপুরী বলেন, পবিত্র ঈদুল আযহার দ্বিতীয় দিনে আমি গরিব অসহায় মানুষের মাঝে হাসি ফুটানোর জন্য প্রতি বছরের ন্যায় এই বছরও ১০ টি গরু ও ৬ টি ছাগল কোরবানি দিয়ে গরিব ও আসহায় মানুষের মধ্যে কুমিল্লা ও নারায়ণগঞ্জ এর সিদ্ধিরগঞ্জ হীরাঝিল আবাসিক এলাকায় বিতরণ করতে পেরেছি। কেননা অসহায় গরিব মানুষ সারা বছর এক কেজি গরুর গোশত কিনতে সামর্থ থাকে না সে সকল অসহায় মানুষদের মাঝে গোশত বিতরণ করতে পেরেছি তাই আল্লাহর দরবারে আমি শুকরিয়া জ্ঞাপন করি। আমার ছেলে প্রিয়ম এর নামে আমি প্রতি বছর এই কার্যক্রম করে যাচ্ছি। শুধু ঈদেই নয় সবসময় অসহায় মানুষকে আমার সাধ্যমত সহযোগীতা করে যাচ্ছি এবং মৃত্যু আগ পর্যন্ত করে যাবো এবং দেশবাসির কাছে আমার একমাত্র ছেলে প্রিয়ম কাঁচপুরীর জন্য দোয়া চাই।
এদিকে শায়েখ মাওলানা তারেক মনোয়ার বলেন, আমার অত্যন্ত প্রিয় ও কাছের মানুষ আলহাজ্ব হাফেজ মাওলানা হাবিবুল্লাহ কাঁচপুরী তার ছেলে প্রিয়ম কাঁচপুরীর জন্য দোয়া চেয়েছে। হাবিবুল্লাহ কাঁচপুরী তার ছেলের জন্য প্রতি বছরের ন্যায় এই বছরও তার কার্যক্রম ধরে রেখেছেন আলহামদুল্লিাহ। সে বছরে যে সকল অসহায় মানুষ এক টুকরা গরুর গোশত রান্না করে খেতে পারে না সে সকল অসহায় মানুষকে গরুর গোশত দিতে পেরেছেন হাবিবুল্লাহ কাঁচপুরী। আপনি যদি আপনার সন্তানের জন্য দোয়া চান তাহলে অন্যের ছেলের জন্য দোয়া করবেন। নামায পড়েন,তার পামাপাশি গরিব অসহায় মানুষের খোজ খবর নেবেন, আপনি এই করোনা মহামারিতে ঈদুল আযহা অহসায় গরিবের মুখে হাসি ফুটান তাহলে আল্লাহ আপনাকে উত্তম যাযা হিসাবে কুবল করে নিবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.